Blog

হেঁটে চলার কাব্য

হাঁটতে আমার ভালো লাগে।
তোমার বাঁকানো পথ আর হেলানো তলে
হাঁটতে আমার ভালো লাগে।
ঝড়ো বাতাস হয়তো টানে; ঠাণ্ডা হাওয়ায় হয়তো কাঁপি,
হয়তো আমার নড়বড়ে পা; পিঠের পরে মস্ত ঝাঁপি।
পথের ধারে নির্বিচারে মরা মেদুর গন্ধ লাগে,
তবুও আমি বলছি না যে
হাঁটতে আমার মন্দ লাগে।

হাঁটতে আমার ভালো লাগে।
তোমার পাহাড়ি ঢল আর বাহারি জলে
হাঁটতে আমার ভালো লাগে।
হয়তো অকালে মরতে পারি; গাড়ির তলে পড়তে পারি,
হয়তো কোথাও হারিয়ে গেলে তোমায় স্মরণ করতে পারি।
হয়তো হঠাত গুলিয়ে ফেলি; রাস্তা অস্পষ্ট লাগে,
তবুও আমি বলছি না যে
হাঁটতে আমার কষ্ট লাগে।

হাঁটতে আমার ভালো লাগে।
তোমার কানাগলি আর ঘুপচি পথে
হাঁটতে আমার ভালো লাগে।
পথের শেষে কোথাও তুমি হয়তো আছ অপেক্ষাতে,
হয়তো আমি থমকে গেলে হারাবো তোমায় অকস্মাতে!
তাইতো আমি হেঁটেই চলি যদিও খানিক ক্লান্তি লাগে,
হাঁটলে তোমায় পেতেও পারি
এটা ভাবতেই শান্তি লাগে।