Blog

দেশদ্রোহীর পাঁচ প্রতিবাদ

এমন দেশে জন্ম আমার-স্তন্য নেই স্তনে মা’র
বারোটি মাস অসুস্থ মা-অভুক্ততায় শুকায় মুখ
রূগ্ন মায়ের রূগ্ন শিশু-রিক্ত পিতা প্রেমপিয়াসু
ঝড় বাদলে কাদাজলে-খেটেও সে যে পায়না সুখ।
এমন দেশে জন্ম আমার-সবার অবস্থা নাজুক।

এমন দেশে জন্ম আমার-সন্তানে নেয় শ্রমের ভার
দেশজননী পায়না দিতে-শ্রমশিশুকে সোনার দিন
এই বয়সে সংসারে সে-জীবিকার যাতা পেষে
ুদে কীট ভেংগে ইট-সভ্যতার সে শুধায় ঋণ।
এমন দেশে জন্ম আমার-দুধের শিশু অশ্র“হীন।

এমন দেশে জন্ম আমার-নাই বালাই স্বাধীনতার
নাই জীবনের নিশ্চয়তা-দুর্নীতিতে ঘূর্ণীপাক
সন্ত্রাসীদের স্বৈরাসনে-মর্ত থেকে নির্বাসনে
বুক ফুলিয়ে বলবে কে-সন্ত্রাসীরা নিপাত যাক?
এমন দেশে জন্ম আমার-সারা পৃথিবী নির্বাক।

এমন দেশে জন্ম আমার-ধর্ষকেরো নাইকো বিচার
নির্যাতিতা নিচ্ছে মেনে-পশুর সাথে বাসর ঘর
ধনকুবের জন যারা-হচ্ছে ধনী ধন্য তারা
চাষা যারা সর্বহারা-পরম্পরা জনমভর।
এমন দেশে জন্ম আমার-সারা বছর ম্বণন্তর।

এমন দেশে জন্ম আমার-অশিতি মূর্খ চামার
রূপোপোজীবিনী মা-রূপ ছাড়া তার গুনতো নাই
সারা দেহে আগুন জ্বেলে-অন্তঃসারশূন্য হলে
দেশদ্রোহী বলুক লোকে-ভুয়ো দেশের দুয়ো গাই।
এমন দেশে জন্ম আমার-শিকড় তবু ছিড়তে নাই।