Blog

ঘুম ভাঙ্গার শব্দ

অদ্ভুত এক যন্ত্রণা নিয়ে ঘুম ভাংলো। কোথাও জ্বরে পুড়ে যাচ্ছে কপাল!

জানলায় দেখি পূবের পাহাড় দিব্যি দাঁড়িয়ে। বুকের ‘পরে লেপ্টে আছে সকাল।

আধোতন্দ্রায় ঢোঁক গিলি। ঠাণ্ডা জল গলায় গড়িয়ে; আমি নিজেও আবার গড়াই।

ঘুম যেন পালিয়ে না যায়, তাই আলোর চে’ বেশি বেগে ভোরের ভুল সরাই!

চার্চে ঘণ্টা বাজে। পৃথিবীর আমলনামায় আরও একটা রাত হয়তো- এইমাত্র কেটে যাচ্ছে।

পিঠের বোঝা ভারী হচ্ছে, মুখের সংখ্যা বেড়ে যাচ্ছে। স্মৃতির সাদা ডিমগুলো- যত্রতত্র ফেটে যাচ্ছে!

ভোরের পাখি ডাকে। পালকের বালিশে মাথা গুজে কানকে বাঁচাই- অমোঘ আহবান থেকে।

ক্লান্ত সময় নষ্ট হচ্ছে, ঘুমুতে ভারী কষ্ট হচ্ছে, পুরনো ধোঁয়া বেড়িয়ে আসছে নির্ঘুম প্রাণ থেকে।

তলিয়ে যাচ্ছি ঘুমে, ঘুম আমাতে তলাচ্ছে। ভেড়া আমি গুনছি, ভেড়ারাও আমাকে গুনছে!

নিউরনে কে নাচছে, কোথায় অ্যালার্ম বাজছে? স্নুজ আমি শুনছি, স্নুজো আমায় শুনছে…