Blog

কিরো কাহিনী

শোন না কাহিনী-
কোপারনিকাসকে হাত দিয়েছি আমি।
সেবার কতই হল্লা ছিল। ছিল
বিনোদনের ত্বকে বিশ্বাসের ঘাম! আমার
মস্ত জ্যোতির্বিদ ওরফে হস্তবিশারদ
শ্রদ্ধেয় ধীরেন স্যার কি দেখলেন জানিনা।
ম্লাণ হেসে বললেন- তুমি তো বাবা কবি নও।
হাতের এই মলিন রেখা কবিদের সাথে মেলেনা।
আধ্যাত্বিকের সাথে একটু যায় বটে তবে কবিদের
ক’ও সেখানে নেই। আমি মনে মনে প্রমাদ গুনি।
ঢোক গিলি। বলি- বলতেন আরো কিছু যদি।
টাকাকড়ি তোমার হবেনা কখনো। যদিও
নির্ঝঞ্ঝাট জীবন তোমার। তবু স্ট্রাগল
দেখছি অনেক। সংসার ভালই চালাবে যদিও
বৃহস্পতি তোমার বড্ড পোড়ামুখ।
আঙ্গুরফল টকের মত বলি- টাকায় আর কী হয়!
তার কাছে আমি আর যাচ্ছিনা বাপু।
ঘরপোড়া গরু সিঁদুরে মেঘ দেখলে ডরায়।